ভারতে এসে ভারতীয়দের নিয়ে কী বলেছিলেন হকিং! জানলে গর্বিত হবেন

২০০১ সালের জানুয়ারি মাস। ১৬ দিনের একটি লম্বা সফরে ভারতে এসেছিলেন ব্রিটিশ পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং। সেই প্রথম, সেই শেষ। ভারতবাসীর আর শোনা হবে না তাঁর বক্তৃতা। কারণ, আজ বুধবার, অন্তরীক্ষেই মিলিয়ে গেলেন ব্ল্যাক হোল থিওরির জনক। বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

স্টিফেন হকিং-এর ভারত সফরের প্রথম পাঁচটি দিন কেটেছিল মুম্বইয়ে। সেখানে ‘টাটা ইনস্টিটিউট অফ ফান্ডামেন্টাল রিসার্চ’-এ পদার্থবিজ্ঞান নিয়ে আন্তর্জাতিক স্তরের সেমিনারে তিনি বক্তব্য রাখেন। সেমিনার শেষ হলে, মুম্বই শহর ঘুরে দেখেন বৈজ্ঞানিক। তাঁর হুইলচেয়ার-সহ যাতে তিনি গাড়িতে বসতে পারেন, তার জন্য মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা কোম্পানির তরফ থেকে একটি বিশেষ ধরনের গাড়ির ব্যবস্থা করা হয়।

প্রসঙ্গত, মুম্বাইয়ের ওবেরয় টাওয়ার্স হোটেলে নিজের ৫৯তম জন্মদিন পালন করেন স্টিফেন হকিং।

ভারত সফরের দ্বিতীয় ভাগে হকিং গিয়েছিলেন রাজধানী শহর দিল্লিতে। তৎকালীন রাষ্ট্রপতি কে আর নারায়ণনের সঙ্গে প্রায় ৪৫ মিনিট কাটিয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি ভবনে। সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সেই ৪৫ মিনিটকে ‘এক অবিস্মরণীয় অভিজ্ঞতা’ বলে বর্ণনা করেন প্রক্তন রাষ্ট্রপ্রধান।

এবং, সেই সময়েই বিশ্বখ্যাত বিজ্ঞানী ভারতীয়দের সম্পর্কে এক বিবৃতি দেন— “Indians are so good at mathematics and physics”। প্রসঙ্গত, দিল্লির যন্তর মন্তর ও কুতুব মিনারেও গিয়েছিলেন স্টিফেন হকিং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *